সবুজবাগ চিশ্তি উস্ সাবেরী পাক দরবার শরীফে ইমাম ও খতিবকে নিয়ে তাণ্ডব

এম.এস. উল্লাহ:  ১৬,মধ্য বাসাবো-সবুজবাগ চিশ্তি উস্-সাবেরী দরবার শরীফ অবস্থিত। উক্ত দরবার শরীফে এক সময় ভক্ত/মুসল্লীর অভাব লক্ষণীয় ছিল। উক্ত অবস্থা থেকে উত্তোরণের লক্ষ্যে দরবার শরীফের পরিচালনা পরিষদের মোতওয়াল্লীর উদ্যোগে গত ১০ই অক্টোবর ২০০৬ খ্রিঃ জনাব মাছুম বিল্লাহ্কে ইমাম ও খতিব পদে পদায়ন করেন। জনাব মোঃ মাছুম বিল্লাহ্ তার অতীত অভিজ্ঞতার আলোকে আন্তরিকতার সহিত কাজ করায় “চিশ্তি উস্-সাবেরী” দরবার শরীফ এখন ভক্ত/মুসল্লীদের পরিপূর্ণতা অর্জনে সক্ষম হয়েছে। উক্ত অর্জন দক্ষ পরিচালনা কমিটি ও ইমাম-খতিবের সমন্বিত প্রয়াসেই সম্ভব হয়েছে। গত সপ্তাহে দরবারের ভক্ত/মুসল্লীদের বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যায় – উক্ত দরবার শরীফে পরিচালনা কমিটির পরিবর্তন হয়েছে – সেই মোতাবেক নতুন কমিটির একাংশ দরবার শরীফের ভক্ত/মুসল্লীদের উপেক্ষা করে উদ্দেশ্য প্রণোদিত আকস্মিকভাবে বর্তমান ইমাম ও খতিবকে সরানোর চেষ্টা করার খবরটি দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ায় ভক্ত/মুসল্লীদের মধ্যে উৎকন্ঠা বিরাজ করছিল। খবর পেয়ে পত্রিকার সম্পাদক বিষয়টি সরেজমিনে জানতে দরবার শরীফে পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি ঘটনাস্থলে প্রেরণ করেন। সেই মোতাবেক গতকাল সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি এবং দরবারের পার্শ্বে সবুজবাগ থানার সামনে দেখা গেল শতাধিক লোকের আগমন – তাদের নিকট থেকে জানা যায়, বর্তমান ইমাম ও খতিব গত একযুগ যাবৎ দায়িত্ব পালন করছেন, তাতে দরবারের প্রভূত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। দরবারের নয়ন মনি মোঃ মাছুম বিল্লাহ্ এর জন্য শতাধিক ভক্ত/মুসল্লীদের চোখে পানি লক্ষ্য করা গেছে। বিষয়টি অত্যন্ত অমানবিক ও উত্তেজনাকর মনে করে পার্শ্বের সবুজবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ বিষয়টি আয়ত্বে আনার আন্তরিক চেষ্টা চালাচ্ছে। আশা করা যায় উনার উদ্যোগে অচিরেই দরবারের ভক্ত/মুসল্লীদের মনের আশা পূরণ হবে। বিষয়টি অতীব গুরুত্বের সহিত বিবেচনার জন্য ঢাকা জেলা প্রশাসকের সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

এ বিষয়ে বিস্তারিত পরবর্তীতে………