সিলেট পুলিশের ফাঁড়িতে রায়হান হত্যাকাণ্ড : আরও তিন পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের বন্দর বাজার ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর ঘটনায় আরও তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) বি এম আশরাফ উল্যাহ তাহের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বরখাস্তকৃত তিন কর্মকর্তা হলেন, কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সৌমেন মিত্র, উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল বাতেন এবং সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) কুতুব আলী। আলোচিত মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) স্থানান্তরের আগে এসআই আব্দুল বাতেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ছিলেন।

গত ১১ অক্টোবর ভোরে বন্দর বাজার পুলিশ ফাঁড়িতে রায়হানের মৃত্যু হয়। ঘটনায় দিন রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন নিহতের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার। এ ঘটনায় পর ওই ফাঁড়ি ইনচার্জসহ চার পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়।

তখন সাময়িক বরখাস্তকৃতরা হলেন, ফাঁড়ি ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) আকবর হোসেন, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) তৌহিদ মিয়া, কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাশ ও হারুনুর রশীদ। আর প্রত্যাহার করা হয়- সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আশীক এলাহী, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) কুতুব আলী ও কনস্টেবল সজীব হোসেন।

 

বৈশাখী নিউজ/ ফাজা