আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে বাবর আজম

গত এপ্রিলে বিরাট কোহলিকে টপকে আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ ব্যাটসম্যান হন বাবর আজম। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে উড়ছেন তিনি। চার ম্যাচে তিন হাফ সেঞ্চুরির পুরস্কার পেলেন টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের এক নম্বর ব্যাটসম্যান হয়ে।

ইংল্যান্ডের ডেভিড মালানকে পেছনে ফেলেছেন বাবর। পাকিস্তানের অধিনায়ক আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৫১ ও নামিবিয়ার বিপক্ষে ৭০ রানের ইনিংস খেলেন। তাতে ক্যারিয়ারে ষষ্ঠবার শীর্ষে জায়গা করে নিলেন।

২৭ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান ২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি প্রথমবার টি-টোয়েন্টির সেরা ব্যাটসম্যান হন। এবার একই সঙ্গে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে এক নম্বরে তিনি।

বাবরের রেটিং পয়েন্ট ৮৩৪, তার চেয়ে ৩৬ পয়েন্ট পেছনে মালান (৭৯৮)। বারের ক্যারিয়ার সেরা রেটিং ৮৯৬, ২০১৯ সালের ৫ মে কার্ডিফে ইংল্যঅন্ডের বিপক্ষে ৬৫ রান করে ওই পয়েন্ট অর্জন করেন। গত বছর ২৯ নভেম্বর থেকে শীর্ষে ছিলেন মালান।

ইংল্যান্ডের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জস বাটলার আট ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা নবম স্থানে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ক্যারিয়ারের প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি করেন তিনি। জেসন রয় ৫ ধাপ এগিয়ে ১৪তম।

শ্রীলঙ্কার লেগস্পিনার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা তার ক্যারিয়ারে প্রথমবার শীর্ষ বোলার হয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে তিনটি করে উইকেট নেন তিনি। তার কাছে জায়গা হারিয়েছেন গত ১০ এপ্রিল থেকে শীর্ষে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার স্পিনার তাবরাইজ শামসি।

র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ চার বোলারের সবাই রিস্ট স্পিনার, ইংল্যান্ডের আদিল রশিদ আফগানিস্তানের রশিদ খানকে পেছনে ফেলে তৃতীয় স্থানে। ক্যারিয়ার সেরা ৭৩০ রেটিং পয়েন্ট তার।

ফাস্ট বোলার হিসেবে দ্রুত উত্থান হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার আনরিখ নর্টিয়ের। ১৮ ধাপ এগিয়ে সপ্তম স্থানে তিনি।

অলরাউন্ডারের টেবিলে মোহাম্মদ নবী ধরে ফেলেছেন সাকিব আল হাসানকে। ২৭১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে যৌথভাবে শীর্ষে তারা। নবীর সুযোগ আছে বাংলাদেশি তারকাকে পেছনে ফেলার, ভারত ও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের পারফরম্যান্স দিয়ে। হাসারাঙ্গা এই তালিকায় চতুর্থ স্থানে।

বৈশাখী নিউজ/ ইডি