মার্কিন সাংবাদিককে মুক্তি দিচ্ছে না মিয়ানমার

পাঁচ মাস ধরে আটক থাকা মার্কিন সাংবাদিক ড্যানি ফেন্সটারের জামিন নামঞ্জুর করেছে মিয়ানমারের একটি আদালত। তার আইনজীবী জানিয়েছেন, এ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ আনা হয়েছে।

ড্যানি ফেন্সটারের বিরুদ্ধে আগে থেকেই মিথ্যা ও অতিরঞ্জিত তথ্য ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। এ অপরাধ প্রমাণিত হলে তিন বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে তার। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে বেআইনি গ্রুপের সঙ্গে সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয়েছে। এতেও তিন বছর পর্যন্তের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে।

ড্যানি ফেন্সটারের আইনজীবী থান জাও অং জানিয়েছেন বুধবার এ মার্কিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিবাসন আইন ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে। ভিসা শর্ত ভঙ্গের অভিযোগে তার পাঁচ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে।

জাতিসংঘে নিযুক্ত সাবেক মার্কিন দূত বিল রিচার্ডসনের মিয়ানমার সফরের মধ্যেই সাংবাদিক ড্যানি ফেন্সটারের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত জানালো আদালত। বিল রিচার্ডসন জানিয়েছেন, সংঘাত কবলিত মিয়ানমারে মানবিক ত্রাণ বিতরণ নিয়ে জান্তা সরকারের সঙ্গে আলোচনার জন্য দেশটি সফরে গেছেন তিনি।

গত ফেব্রুয়ারিতে সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকেই মিয়ানমারে সহিংসতা এবং নাগরিক অসন্তোষ চলছে। ওই অভ্যুত্থানে অং সান সু চির নির্বাচিত সরকার উৎখাত করা হয়।

অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীরা মারধর, গুলি এবং গ্রেফতারের সম্মুখীন হয়েছে। ফলে বিক্ষোভকারীরা ক্রমেই সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে সশস্ত্র প্রতিরোধ গড়ে তুলছে। দেশটির বহু অংশেই সক্রিয় রয়েছে সশস্ত্র যোদ্ধারা।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা