মাদার তেরেসার সাহায্য সংস্থার বিদেশি অনুদান বন্ধ করল ভারত

মাদার তেরেসার প্রতিষ্ঠিত সাহায্য সংস্থার বিদেশি অনুদান পাওয়ার লাইসেন্স স্থগিত করেছে ভারত সরকার। খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের বড়দিন বা ক্রিসমাস ডে’তে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় ওই সংস্থাটির রেজিস্ট্রেশন বিষয়ে নতুন এই সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

পরে সোমবার এক বিবৃতিতে সংস্থাটি তাদের লাইসেন্স নবায়ন আবেদন প্রত্যাখ্যাত হওয়ার কথা জানায় এবং বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তারা কোন বিদেশি তহবিল সংক্রান্ত অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করবে না।

মিশনারিজ অফ চ্যারিটি নামের এই সংস্থাটি পরিত্যক্ত শিশুদের জন্য হোম ছাড়াও অনেক স্কুল ও হাসপাতাল পরিচালনা করছে।

দেশটির হিন্দু কট্টরবাদীরা এই সাহায্য সংস্থার বিরুদ্ধে সেখানকার লোকজনদের খ্রিস্ট ধর্মে ধর্মান্তরিত করার চেষ্টার অভিযোগ করে আসছিল। যদিও সংস্থাটি বরাবরই এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসছে।

এর আগে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই সাহায্য সংস্থা নিয়ে একটি টুইট করে সমালোচনা করেন। তিনি লিখেছিলেন যে সরকার সংস্থাটির ব্যাংক একাউন্ট ফ্রিজ করেছে।

মেসিডোনিয়া থেকে আসা রোমান ক্যাথলিক মাদার তেরেসা ১৯৫০ সালে কলকাতা ভিত্তিক এই সংস্থাটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ক্যাথলিকদের সাহায্য সংস্থার মধ্যে এটি বিশ্বের অন্যতম সবচেয়ে সুপরিচিত একটি।

মানবিক কার্যক্রমের জন্য ১৯৭৯ সালে নোবেল শান্তি পুরষ্কার পেয়েছিলেন তিনি। আর তার মৃত্যুর সতেরো বছর পর ২০১৬ সালে পোপ ফ্রান্সিস তাকে ‘সেইন্ট বা সন্ত’ ঘোষণা করেন। সূত্র: বিবিসি

বৈশাখী নিউজ/ ইডি