সুদানে সোনার খনি ধসে নিহত ৩৮

সুদানের পশ্চিম কর্দোফান প্রদেশে একটি পরিত্যক্ত স্বর্ণের খনি ধসে কমপক্ষে ৩৮ জন নিহত হয়েছে বলে দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

দেশটির রাষ্ট্র-চালিত খনি কোম্পানি এক বিবৃতিতে বলেছে, রাজধানী খার্তুম থেকে ৭০০ কিলোমিটার দক্ষিণে ফুজা গ্রামে বন্ধ, একটি খনি ধসে পড়েছে। এতে অনেকেই আহত হয়েছে বলা হলেও, তার সুনির্দিষ্ট কোনো সংখ্যা তারা জানায়নি।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, খনির বেশ কয়েকটি খাদ ধসে পড়েছে। এতে মৃতদের ছাড়াও অন্তত আটজন আহত ব্যক্তিকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

খনি কোম্পানিটি ফেসবুকে দুর্ঘটনার ছবি পোস্ট করেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে অন্তত দুটি ড্রেজার উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

অন্যান্য ছবিতে দেখা গেছে মানুষ মৃতদের দাফন করার জন্য নিয়ম মতো কবর প্রস্তুত করা হচ্ছে।
সংস্থাটি বলছে, খনিটি কার্যকর না থাকলেও, এর পাহারায় নিযুক্ত নিরাপত্তা বাহিনী ওই এলাকা ছেড়ে গেলে, স্থানীয় খনি শ্রমিকরা কাজে ফিরে আসে। তবে ঠিক কবে থেকে খনির কাজ বন্ধ ছিল, তা স্পষ্ট করে বলা হয়নি।

দেশজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অসংখ্য খনি সমৃদ্ধ একটি প্রধান স্বর্ণ উৎপাদক দেশ সুদান। ২০২০ সালে, পূর্ব আফ্রিকান দেশটি ৩৬.৬ টন স্বর্ণ উৎপাদন করেছিল, সরকারী হিসাব মতে, যা ওই মহাদেশে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্বর্ণ উৎপাদন।

স্বর্ণ চোরাচালানের অভিযোগ সত্ত্বেও, গত দুই বছরে এই শিল্পকে নিয়ন্ত্রণ করতে শুরু করেছে দেশটির অন্তর্র্বতী সরকার।

সুদানের সোনার খনি ধসে পরা নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা, কারণ সেখানে নিরাপত্তার মান সর্বত্র কার্যকর নয়।

বৈশাখী নিউজ/ বিসি