সিরিজ বাতিলের কোনো সুযোগ নেই: পাপন

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসজনিত কারণে নিউজিল্যান্ড সফর বাতিলের কোনো সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) ক্রিকেট বোর্ডের জরুরি সভার পর সংবাদমাধ্যমে এ কথা জানান তিনি।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘গত অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকে শুরু করে টানা খেলার মধ্যে রয়েছে ক্রিকেটাররা। এখন নিউজিল্যান্ড সফরে রয়েছে তারা। এটি শেষ করে দেশে ফেরার ৪-৫ দিনের মধ্যেই বিপিএল শুরুর সম্ভাব্য তারিখ ঠিক করা আছে। এই ব্যস্ততা চলবে ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।

তিনি বলেন, আমরা ওদের কোনো বিরতি বা বিশ্রামই দিতে পারছি না। খেলোয়াড়রা সবাই মানসিক ও শারীরিকভাবে খুবই বিপর্যস্ত অবস্থায় রয়েছে। কয়েকজন চেয়েছিল সিরিজটি বাদ দেওয়া যায় কি না, দেশে ফিরে আসা যায় কি না। আসলে এটার কোনো সূযোগ নেই, আমাদের জানামতে কোনো সুযোগই নেই।’

তবে একটি সম্ভাবনার পথ খোলা আছে বলে জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি। বর্তমানে বাংলাদেশ দলের কোয়ারেন্টাইন বাড়ানো হয়েছে ২১ তারিখ পর্যন্ত। এরপর যদি আরো বাড়তি কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়, সেক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী করণীয় ঠিক করবে বিসিবি।

পাপনের ভাষ্য, ‘যদি ২১ তারিখের পর আরো বাড়ানো হয় (কোয়ারেন্টাইন), তাহলে আমরা ওদের (নিউজিল্যান্ড) বোর্ডের সঙ্গে আলোচনায় বসবো যে কী করা যায়। বাংলাদেশ সিরিজের এক সপ্তাহ পরই ওদের ওখানে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছে। তাই ওদের হাতেও সময় নেই। তাই দুই-চারদিন হয়তো (সফরের সূচি) এদিক-ওদিক করা যেতে পারে। এখন পর্যন্ত এটিই হচ্ছে অবস্থা।

এক্ষেত্রে সমস্যা আরো আছে। বাংলাদেশ দলের ফ্লাইটে থাকা এক সহযাত্রীর শরীরে ওমিক্রনের উপস্থিতি পাওয়া যাওয়ার কারণে, এ বিষয়টি পুরোপুরি তদারকি করছে নিউজিল্যান্ড স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। যে কারণে কিউইদের ক্রিকেট বোর্ডের হাতেও সবকিছু নেই বলে জানালেন বিসিবি সভাপতি।

তিনি বলেন, পুরো বিষয়টা কিন্তু নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের হাতে না। এটা দেখছে ওদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তবে ওরা যতোটা সম্ভব আমাদের সাপোর্ট দেওয়ার চেষ্টা করছে। আমরা এটিকে এপ্রিশিয়েট করি।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা