তুমুল রোষের মুখে সানি লিওন

সম্প্রতি একটি মিউজিক ভিডিওতে পারফর্ম করার কারণে নেট নাগরিকের তুমুল রোষের মুখে পড়েছেন বলিউড তারকা সানি লিওনি। টুইটার থেকে ইনস্টাগ্রামে রীতিমতো ঝড় বয়ে যাচ্ছে সেই মিউজিক ভিডিওর বিতর্কে। সানি এবং মিউজিক ভিডিওর উদ্যোক্তাদের বিরুদ্ধে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত হানার অভিযোগ তুলেছেন একাংশের নেট নাগরিক।

সম্প্রতি ইউটিউবে মুক্তি পেয়েছে মিউজিক ভিডিও ‘মধুবন’। গানটি গেয়েছেন বলিউড কাঁপানো গায়িকা কনিকা কাপুর ও অরিন্দম চক্রবর্তী। ভিডিওতে স্বল্প বস্ত্রে নাচ করেছেন সানি লিওন। যার কোরিওগ্রাফি করেছেন গণেশ আচার্য। মূলত ১৯৬০ সালে ‘কহিনুর’ সিনেমার ‘মধুবন মে রাধিকা নাচে রে’ গান থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই এই গানটি তৈরি করেছে সারেগামা মিউজিক সংস্থা।

হিন্দু দেব-দেবীদের মধ্যে রাধা ও কৃষ্ণের প্রেম নিয়ে আলাদা আবেগ রয়েছে অনেকের। শ্রী রাধিকাকে নিয়ে এমন অশ্লীল কথার গান সংস্থা কীভাবে তৈরি করল, তা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। কেউ আবার সরাসরি সানিকে আক্রমণ করেই লিখেছেন, শ্রী রাধিকা কোনওদিন এই ধরনের পোশাক পরেননি।

রাধার সংস্কৃতি নিয়ে এমন ছিনিমিনি খেলে হিন্দুদের আবেগে আঘাত হানা অত্যন্ত অন্যায় বলেই মনে করছেন কেউ কেউ। রাধা-কৃষ্ণের সম্পর্ক নিয়ে আইটেম এবং পার্টি সং বানানোর আগে সংস্থার মাথা খাটানোর প্রয়োজন ছিল বলেও মনে করছেন অনেকে। একাংশের দাবি, গানটি নেট মাধ্যম থেকে মুছে ফেলাই উচিত।