গান গেয়ে বিতর্কে ইন্দ্রাণী

ভারতের জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদারের অভিনয় বরাবরই মুগ্ধ করেছে সিনেমা প্রেমীদের। কিন্তু বিগত কয়েক মাসের মধ্যে তিনি একাধিকবার নেটিজেনদের রোষের মুখেও পড়েছেন! কেন? কারণ অনেকেরই দাবি, তিনি বাংলার সংস্কৃতিকে অপমান করেছেন। তা সঠিক কী ঘটেছে?

কয়েক মাস আগেই এক অনুষ্ঠানের মঞ্চে দাঁড়িয়ে রবীন্দ্রসংগীত গাওয়ায় অভিনেত্রী হতাশ করেছিলেন তাঁর ভক্ত থেকে রবীন্দ্রনাথের অনুরাগীদের। এর কিছুদিনের মধ্যেই রবীন্দ্রসংগীত গাইতে গিয়ে দ্বিজেন্দ্রগীতি গেয়ে ফেললেন তিনি। নেট মাধ্যমে সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে ইন্দ্রাণী হালদারের গান গাওয়ার একটি ভিডিও। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে মঞ্চে দাঁড়িয়ে অভিনেত্রী। তাকে সামনাসামনি দেখে উত্তেজিত দর্শক। সেই সঙ্গে তাকে গান গাওয়ার অনুরোধও করছেন অনেকে।

সঙ্গে সঙ্গে ইন্দ্রাণী বলে ওঠেন, তিনি অভিনেত্রী, গায়িকা নন। কিন্তু শত অনুরোধের পর তিনি গাইতে রাজি হলেন। মাইক হাতে বললেন তিনি একটি রবীন্দ্রসংগীত গাইবেন। এরপরই গেয়ে উঠলেন দ্বিজেন্দ্র লাল রায়ের লেখা ‘ধন ধান্য পুষ্প ভরা’ গানটি। এই দেখেই চটেছেন নেটিজেনরা।

এত বড় মাপের একজন শিল্পী এই ধরনের ভুল কী করে করতে পারেন, ভেবেই অবাক তার ভক্তরা। কেউ কেউ আবার প্রশ্ন তুলেছেন, রবীন্দ্রসংগীত নিয়ে কি কোনও ধারণাই নেই এই অভিনেত্রীর। বাংলার অভিনেত্রী হয়েও এত বিখ্যাত গান কার লেখা তাই জানেন না! অনেকেই আবার দাবি করেছেন, আগামী দিনে তিনি যেন আর কখনই রবীন্দ্রসংগীত না গান।

বৈশাখী নিউজ/ এপি