করোনার বিরুদ্ধে লড়তে ব্রিটেনে সামরিক হেলিকপ্টার মোতায়েন

করোনার মৃত্যুপুরী হয়ে উঠেছে রানীর দেশ গ্রেট ব্রিটেন। দেশটিতে এরই মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় ৯ হাজার। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে ১০ হাজারের মাইলফলক অতিক্রম করবে বলে এটা বলাই যায়। আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৭৪ হাজার। এমন পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে দেশজুড়ে সামরিক হেলিকপ্টার মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

মার্চ মাসে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছিল যে, তারা ২০ হাজার সদস্যের একটি শক্তিশালী সিভিল কন্টিজেন্সি ইউনিট (সিসিইউ) তৈরি করেছে। করোনাভাইরাস মহামারি ছড়িয়ে পড়া রোধে এই বাহিনী কাজ করবে। এতদিন করোনার লড়াইয়ে মাঠে ছিল এনএইচএস’র স্বাস্থসেবা কর্মী ও পুলিশ বাহিনী। এবার তাদের সঙ্গে যোগ দেবে এই বিশেষ বাহিনী।

ডেইলি মেইল ​​লিখেছে, কভিড-১৯ মহামারি মোকাবেলায় সহায়তার লক্ষ্যে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে গুরুতর রোগীদের হাসপাতালের আনতে বিমান বাহিনী ও এভিয়েশন সদস্যদের নিয়ে গঠিত ৩০০ সদস্যের একটি শক্তিশালী যৌথ টাস্কফোর্স গঠন করেছে। এই বহরে থাকছে ১৩টি সামরিক হেলিকপ্টার। তারা দেশের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে রোগীদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসবে।

হেলিকপ্টারগুলি পুরো যুক্তরাজ্যে মোতায়েন থাকবে। বিভিন্ন অঞ্চলে উড়ে গিয়ে রোগীদের উদ্ধার করে নিয়ে আসা, নির্দিষ্ট অঞ্চলে ওষুধ ও মেডিক্যাল সরঞ্জাম পৌঁছে দেওয়া, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরিবহণ করা এমন সব কাজে যুক্ত থাকবে।

যুক্তরাজ্যে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৭৩ হাজার ৭৫৮ জন, মারা গেছেন ৮ হাজার ৯৫৮ জন। আর চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন অন্তত ৩৪৪ জন। আগামী কয়েক সপ্তাহে দেশটিতে মৃত্যুহার ভয়াবহ আকারে বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সূত্র- স্পুটনিক নিউজ।

বৈশাখী নিউজএপি