করোনায় দুই বিশ্বযুদ্ধের চেয়ে বেশি মানুষ মারা যেতে পারে, শঙ্কা উহানের চিকিৎসকের

সময়: 9:03 pm - April 12, 2020 | | পঠিত হয়েছে: 7 বার

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতি মুহূর্তে দীর্ঘ হচ্ছে লাশের মিছিল। বিশ্বের ২০৯টি দেশ ও অঞ্চলে একযোগে তাণ্ডব চালাচ্ছে এই ভাইরাস। এর বিষাক্ত ছোবলে ইতোমধ্যে বিশ্বব্যাপী ১৭ লাখ ৮০ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখের বেশি মানুষের।

এদিকে চীনের উহান শহরে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জেরে অস্থায়ীভাবে হাসপাতাল নির্মাণের সময় লেইশেনশেন হসপিটালের প্রধান ওয়াং শিংহুয়ান বলেছিলেন, প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ মিলে যত মানুষের মৃত্যু হয়েছে, মহামারি করোনায় তার তুলনায় অনেক বেশি মানুষ মারা যাবে। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের মতো শহরগুলো বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলে আগেই সতর্ক থাকতে বলেছিলেন তিনি।

এ ব্যাপারে ওয়াং শিংহুয়ান বলেছেন, এই সংক্রামক রোগ দুই বিশ্বযুদ্ধে মারা যাওয়া মোট মানুষের তুলনায় বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে পারে। এটা (করোনা) সত্যিই ব্যাপক ভয়ঙ্কর।

তিনি মাস্ক পরার ব্যাপারে জোর দিয়েছেন এবং হাসপাতালে সরঞ্জাম সরবরাহ যথেষ্ট রাখারও পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি বলেন, যখন নিউইয়র্কের ডাক্তারদের সঙ্গে আমার কথা হয়, তারা বলেছিল ফেস মাস্ক ব্যবহার করা কিংবা না করার বিষয়টা সংস্কৃতির ব্যাপার। হংকংয়ের ফনিক্স টেলিভিশন থেকে এ ব্যাপারে আমার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল। আমি মনে করি যে, সকল গণমাধ্যমের এই বার্তা দেওয়া উচিৎ যে, ফেস মাস্ক ব্যবহার করা কোনো সংস্কৃতির ব্যাপার নয়। এটা বিজ্ঞানসম্মত। বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত যে, নিজেদের সুরক্ষার জন্য মাস্ক পরতে হবে।

নিউইয়র্কে মহামারিটি ছড়িয়ে যাওয়া নিয়েও কথা বলেছেন তিনি। তিনি বলেন, উহানে সে ধরনের ব্যর্থতার অভিজ্ঞতা আমাদের হয়েছে। অনেক রোগীর মধ্যেই হালকা ধরনের লক্ষণ দেখা যাচ্ছিল। তাদেরকে বাড়ি ফিরে গিয়ে আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু পরে আমরা বুঝেছি, এটা বড় ধরনের ব্যর্থতা। এই ভুল এখন নিউইয়র্ক করছে।

সূত্র : এএফপি

বৈশাখী নিউজইডি

Share Now

এই বিভাগের আরও খবর