করোনাভাইরাস: পাকিস্তানে লকডাউনের মধ্যেও কলকারখানা খোলার সিদ্ধান্ত

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ছোবলে বিশ্বব্যাপী প্রতি মুহূর্তে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এখন গোটা বিশ্বে ১৯ লাখ ৯৮ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এই ভাইরাসে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ২৬ হাজারের বেশি। প্রতি মুহূর্তেই বাড়ছে এই আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

মহামারি করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে পাকিস্তানেও। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৫ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৯৬ জনের। তারপরও পাকিস্তান সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্দিষ্ট কিছু কলকারখানা পুনরায় খোলার।

অবশ্য তিন সপ্তাহের লকডাউন শেষ হওয়ার পর আরও দুই সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। সেটা স্কুল, কলেজ, শপিং মল, জনসমাগম ও কম গুরুত্বপূর্ণ সেবাখাতের জন্য। কিন্তু বেকারত্বের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় এবং অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে নির্দিষ্ট কিছু কলকারখানা খোলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জাতীয় সমন্বয় কমিটির সভা শেষে এই সিদ্ধান্তের কথা জানান।

শুরুতেই খুলবে নির্মাণ খাত। এরপর আস্তে আস্তে অন্যান্য খাত ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত হবে।

তবে প্রাদেশিক সরকার যদি মনে করে এসব ক্ষেত্রে আরও কিছুদিন লকডাউন রাখা দরকার তাহলে তারা সেটা রাখতে পারবে।

তথ্যসূত্র : রয়টার্স

বৈশাখী নিউজবিসি