দেড়শ’ টাকা বেতন না দেওয়ায় শিশুকে নির্যাতন, মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

সময়: 6:55 pm - December 8, 2018 | | পঠিত হয়েছে: 5 বার

বরিশাল নগরীর দক্ষিণ আলেকান্দা সিকদারপাড়া নূরানী মাদ্রাসার পরীক্ষা হলে এক ক্ষুদে শিক্ষার্থীকে বেঞ্চের উপর দাঁড় করিয়ে কান ধরে উঠ-বস করানোর অভিযোগে শিক্ষক মো. সিরাজকে আটক করেছে পুলিশ। মাত্র দেড়শ’ টাকা বেতন পরিশোধ করতে না পাড়ার অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার ওই শিশু শিক্ষার্থী নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক মো. সিরাজকে শনিবার আটক করে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ। 

নির্যাতনের শিকার শিশু আহাদুজ্জামান মাহি ওই মাদ্রাসার প্রথম জামায়াতের শিক্ষার্থী এবং সিকদারপাড়ার বাসিন্দা কামরুজ্জামান বাবলুর ছেলে। মাহির বাবলু জানান, গত সপ্তাহ থেকে ওই মাদ্রাসার পরীক্ষা শুরু হয়। পরীক্ষার ফি বাবাদ ১৩শ’ ৫০ টাকার মধ্যে ১২শ’ টাকা তিনি পরিশোধ করেন। বাকি দেড়শ’ টাকা পরীক্ষার মধ্যে পরিশোধ করার অঙ্গীকার করেন তিনি। কিন্তু গত বৃহস্পতিবার প্রথম পরীক্ষার দিনই মাদ্রাসার শিক্ষক মো. সিরাজ বকেয়া টাকার জন্য তার ছেলে মাহিকে বেঞ্চের উপর দাড় করিয়ে কান ধরে উঠ-বস করান এবং টাকা না দিলে পরীক্ষার হল থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দেয়। 

বাবলুর অভিযোগ, ওই ঘটনার পর তার ছেলে মাহি মানসিক ও শারীরিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। এখন সে মাদ্রাসায় যেতে চায় না। বিষয়টি তিনি তার ফেসবুক আইডি’তে পোস্ট করে বিচার দাবি করেন। ওই পোস্টটি বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ফেসবুক পেজে শেয়ার করেন তিনি। মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃপক্ষ বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করে ওই শিক্ষককে আটক করেছে। 

কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মো. নুরুল ইসলাম জানান, শিশুটিকে যদি সত্যিই নির্যাতন করা হয় তাহলে আটক শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। উর্ধ্বতন কর্তৃৃপক্ষের নির্দেশে বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানান। 

Share Now

এই বিভাগের আরও খবর