বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’, ৩ নম্বর সংকেত বহাল

সমুদ্রের মধ্যেই ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’ দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি আরো শক্তি হারিয়ে রোববার নিম্নচাপে পরিণত হয়ে ভারতের উড়িষ্যার পুরি উপকূল অতিক্রম করবে। এর প্রভাবে বাংলাদেশে বৃষ্টি হচ্ছে, উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এজন্য দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখা হয়েছে।

গভীর নিম্নচাপটি পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে লঘুচাপ হিসেবে প্রবেশ করতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। গত রাতে ‘জাওয়াদ’ আরো উত্তর দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে একই এলাকায় গভীর নিম্নচাপ আকারে অবস্থান করে।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে (ক্রমিক নম্বর-১১) আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, গভীর নিম্নচাপটি আরও উত্তর ও উত্তর-পূর্বদিকে এগিয়ে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এটি রোববার সকাল ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৫৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল। এটি আরও উত্তর ও উত্তর-পূর্বদিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যেতে পারে।

এতে বলা হয়, গভীর নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৮ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার, যা দমকা বা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। গভীর নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটে সাগর উত্তাল রয়েছে।

গভীর নিম্নচাপটির অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা সৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে এবং উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ী দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

আবহাওয়া অধিদপ্তর আরো জানায়, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

শনিবার ঢাকার আকাশ মেঘলা থাকলেও রোববার সকাল ৯টার পর থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। আকাশ মেঘে ঢেকে আছে। দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে শনিবার থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, রোববার সকালে ‘জাওয়াদ’ আরও শক্তিক্ষয় করে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি ঘণ্টায় ১১ কিলোমিটার গতিবেগে উড়িষ্যা উপকূলের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দুপুর নাগাদ উড়িষ্যার পুরি উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা