নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে সহিংসতার আশঙ্কা দেখছেন না : সিইসি

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে সহিংসতার আশঙ্কা দেখছেন না প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। নির্বাচন সুষ্ঠু হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

বুধবার দুপুরে, নারায়ণগঞ্জের মর্গান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে ব্রিফিংয়ে একথা বলেন সিইসি।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বলেন, ইভিএম একমাত্র নির্ভরযোগ্য প্রযুক্তি যার মাধ্যমে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব। নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে সহিংসতার কোন শঙ্কা দেখছি না। কোনো প্রার্থীর সহিংস মনোভাব নেই, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও তৎপর রয়েছে, কোন সহিংসতার সম্ভাবনা নেই।

করোনা সংক্রমণ বাড়ার মধ্যে ভোট নেয়া প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাচন কমিশনার জানান, এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত পরে হবে। এমনকি এখনো ভোট স্থগিতের পর্যায়ে যায়নি করোনা সংক্রমণ। তবে মাস্ক ছাড়া কাউকে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না বলেও জানান তিনি।

১৬ই জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ভোট। ভোটার সংখ্যা ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩১৬ জন। এবারের নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে ১৯৩টি কেন্দ্রে। ২০১৬ সালের চেয়ে কেন্দ্র বেড়েছে ১৯টি।

এবারের নির্বাচনে সব কেন্দ্রকে অতি গুরুত্বপূর্ণ মনে করছে প্রশাসন। মোতায়েন থাকবে তিন হাজার পুলিশ সদস্য, ২০ প্লাটুন বিজিবি, ২০০ প্লাটুন আর্মড পুলিশ এবং প্রতি কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকবে র‍্যাব সদস্যরাও। এছাড়া, ২৭টি ওয়ার্ডে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ স্ট্রাইকিং ফোর্স মাঠে থাকবে ।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা